সরাসরি প্রধান সামগ্রীতে চলে যান

পোস্টগুলি

January, 2012 থেকে পোস্টগুলি দেখানো হচ্ছে

Copyright

আমি আইন বিশেষজ্ঞ নই। তবে, যে বিচার-বুদ্ধি ও বিবেক সকল আইনের উৎস, তা দিয়ে আমি Copyright & Piracy rethink করতে বসেছি।

১. কেনা-বেচা : আদিযুগ থেকে মানুষের মাঝে ক্রয়-বিক্রয় প্রক্রিয়া চলে আসছে। কোনো ব্যক্তি যখন কোনো কিছু বিক্রি করেন, তখন সেই জিনিসটার উপর থেকে তার সত্ত্ব চলে যায়, বস্তুটার মালিকানা চলে যায় ক্রেতার কাছে। যেমন, আলু, চা, মাছ, মাংস, শার্ট, প্যান্ট, জুতা, ইত্যাদি যখন আমরা কিনি, তখন সেটার সমস্ত মালিকানা আমাদের হােত চলে আসে। আমরা সেটাকে যেভাবে খুশি ব্যবহার করতে পারি -- কাউকে দান করতে পারি, ভোগ করতে পারি, কিংবা নিছক নষ্ট করতে পারি। আদিকালে যত সমস্ত বস্তু কেনা-বেচা করা যেত, তার সবের উপরেই ক্রেতার এ ধরণের অধিকার ছিলো। এখনও আমরা এ ধরণের বস্তুর উপর অনুরূপ অধিকার ভোগ করে থাকি।

২. প্রডাক্টের ধরণ : প্রডাক্টকে একাধিক ভাবে একাধিক ভাগে ভাগ করা যায়। যেমন, পচনশীল দ্রব্য (expense) আর পুনর্ব্যবহার্য দ্রব্য(asset)। Expense এর উদাহরণ খাদ্যদ্রব্য, কলম, পেন্সিল, ইত্যাদি। Asset এর উদাহরণ চেয়ার-টেবিল, ফার্নিচার, ইত্যাদি; এছাড়াও হাউজহোল্ড অ্যাসেটও আছে। এই দুই ধরণের প্রডাক্টই আমরা যখন কিনি, তখ…

যথার্থই...

পরীক্ষা শেষ হলো আঠারো তারিখ দুপুরে। বাসায় এসে গোসল-নামাজ-খাওয়া সেরে ঠিক চারটায় বেরোলাম কলেজের বন্ধুদের সােথ দেখা করতে। দু'জন আবার সিলেট থেকে এসেছে গোলমালে ইউনিভার্সিটি বন্ধ থাকার সুযোগে (!)। একজন, দুইজন, তিনজন, চারজন... চারটা, পাঁচটা, ছ'টা, সাতটা...।
এলোমেলো, অসংহত বিচ্ছিন্ন সব আলাপ, কারো সিগারেট, কারো ফোনে ফেসবুক থেকে নেয়া নাম-না-জানা সুন্দরীর ছবি, কারো ফোনে মেটালিকার গান, কাঁচের কাপে দুধ দেয়া চা, কলা-ভেরি কিংবা লেইট গুডবাই আর কারো অশ্লীল কথা : এইসব মিলে -- একে বলে, 'আড্ডা'। অহেতুক তত্ত্বের কচকচানি শুরু করবো না, তবে, একে 'সামাজিকতা', কিংবা 'মেইনটেইন করা'-ও বলে।